নিউজঃ

আমাদের সম্পর্কে

স্মৃতিতে খুলনা মহিলা কলেজ

১৯৪০ সালের ১৮ জুলাই প্রয়াত রায় বাহাদুর মহেন্দ্র কুমার ঘোষ খুলনা সরকারি মহিলা কলেজ প্রতিষ্ঠিত করেছিলেন। প্রথমে এর নাম ছিল রাজেন্দ্র কুমার গার্লস কলেজ। খুলনা করোনেশন গার্লস স্কুলে প্রথম ক্যাম্পাস এবং খুলনা সিটি ল’ কলেজে ২য় ক্যাম্পাস ছিল। ১৯৬৫ সাল থেকে বর্তমানে বয়রাস্থ ১৬.১০ একর জমির উপর নিজস্ব ক্যাম্পাসে শুরু করে খুলনা মহিলা কলেজ,খুলনা। পরবর্তীতে ১৯৬৮ সালে জাতীয়করণ(সরকারিকরণ) করা হয় ঐতিহ্যবাহী এই প্রতিষ্ঠানটিতে বর্তমানে উচ্চ মাধ্যমকি,স্নাতকসহ ১২ টি বিষয়ে অনার্স ও ৬ টি বিষয়ে মাস্টার্স কোর্স চালু রয়েছে। এস কোর্সে বতর্মানে ১২ হাজার ছাত্রী অধ্যায়নরত এবং ৮২ জন দক্ষ শিক্ষক ও ৬৬ জন কর্মঠ কর্মচারী কর্মরত আছে। কলেজটিতে আছে ৩ টি আবাসিক ছাত্রীনিবাস। ছাত্রীনিবাসগুলোতে বর্তমানে ৬০০ ছাত্রীর স্থান রয়েছে। কলেজটিতে রয়েছে খুলনা বিভাগের সব থেকে বড় এবং সুস্বজ্জিত একটি অডিটোরিয়াম। কলেজ ক্যাম্পাস জুড়ে আছে ওয়াইফাই সুবিধা, আছে সুবিশাল আইসিটি ভবন এবং আইসিটি ল্যাব। সহ-শিক্ষাকার্যক্রমের জন্য রয়েছে বিএনসিসি,রোভার,গার্লস গাইড,রেঞ্জার,ডিবেট ক্লাব, সাসাক ইত্যাদি। দরিদ্র এবং মেধাবী ছাত্রীদের জন্য রযেছে বিশাল লাইব্রেরী,লাইব্রেরীতে রযেছে দেশি বিদেশী প্রায় ২০০০০ (বিশ হাজার) বইয়ের সংগ্রহ। কলেজে রয়েছে সু-বিশাল খেলার মাঠ। কলেজে সম্মুখে রয়েছে নানা ফুলের সমাহারে ফুলের বাগান। এক কথায় খুলনা বিভাগ তথা বাংলাদেশের নারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মধ্যে খুলনা সরকারি মহিলা কলেজ একটি অন্যতম শ্রেষ্ঠ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান।