নিউজঃ

Khulna Govt. Mohila College

[ess_post]

সরকারি মহিলা কলেজ :  ১৯৪০ সালের ১৮ জুলাই প্রয়াত রায় বাহাদুর মহেন্দ্র কুমার ঘোষ খুলনা সরকারি মহিলা কলেজ প্রতিষ্ঠিত করেছিলেন। প্রথমে এর নাম ছিল রাজেন্দ্র কুমার গার্লস কলেজ। খুলনা করোনেশন গার্লস স্কুলে প্রথম ক্যাম্পাস এবং খুলনা সিটি ল’ কলেজে ২য় ক্যাম্পাস ছিল। ১৯৬৫ সালে বর্তমানে বয়রাস্থ ১৬.১০ একর জমির উপর নিজস্ব ক্যাম্পাসে শুরু করে খুলনা মহিলা কলেজ,খুলনা। পরবর্তীতে ১৯৬৮ সালে জাতীয়করণ(সরকারিকরণ) করা হয় ঐতিহ্যবাহী এই প্রতিষ্ঠানটিতে বর্তমানে উচ্চ মাধ্যমকি,স্নাতকসহ ১২ টি বিষয়ে অনার্স ও ৬ টি বিষয়ে মাস্টার্স কোর্স চালু রয়েছে। এস কোর্সে বতর্মানে ১২ হাজার ছাত্রী অধ্যয়নরত এবং ৮২ জন দক্ষ শিক্ষক ও ৬৬ জন কর্মঠ কর্মচারী কর্মরত আছে। কলেজটিতে আছে ৩ টি আবাসিক ছাত্রীনিবাস। ছাত্রীনিবাসগুলোতে বর্তমানে ৬০০ ছাত্রীর স্থান রয়েছে। কলেজটিতে রয়েছে খুলনা বিভাগের সব থেকে বড় এবং সুসজ্জিত অডিটোরিয়াম। কলেজ ক্যাম্পাস জুড়ে আছে ওয়াইফাই সুবিধা, আছে সুবিশাল আইসিটি ভবন এবং আইসিটি ল্যাব। সহ-শিক্ষাকার্যক্রমের জন্য রয়েছে বিএনসিসি,রোভার,গার্লস গাইড,রেঞ্জার,ডিবেট ক্লাব, সাসাক ইত্যাদি। দরিদ্র এবং মেধাবী ছাত্রীদের জন্য রয়েছে বিশাল লাইব্রেরী,লাইব্রেরীতে রয়েছে দেশি বিদেশী প্রায় ২০০০০ (বিশ হাজার) বইয়ের সংগ্রহ। কলেজে রয়েছে সু-বিশাল খেলার মাঠ। কলেজে সম্মুখে রয়েছে নানা ফুলের সমাহারে ফুলের বাগান। এক কথায় খুলনা বিভাগ তথা বাংলাদেশের নারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মধ্যে খুলনা সরকারি মহিলা কলেজ একটি অন্যতম শ্রেষ্ঠ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। বাংলাদেশে উচ্চশিক্ষা বিস্তারের অভিযাত্রায় সরকারি মহিলা কলেজ এক অনন্য ও পথিকৃৎ প্রতিষ্ঠান। আশি বছরের পরিক্রমায় জাতির মেধা, মনন ও মানবসম্পদ উন্নয়নে প্রতিষ্ঠানটি নিরন্তর ভূমিকা রেখে চলেছে। জাতির আর্থসামাজিক ও সাংষ্কৃতিক বিকাশের সঙ্গে অঙ্গাঙ্গি জড়িত থেকে প্রতিষ্ঠানটি নিজেই হয়ে উঠেছে আমাদের জাতীয় ইতিহাসের এক অবিচ্ছেদ্য অংশ। দেশের অনেক মনীষী, পণ্ডিত ও কৃতবিদ্য শিক্ষক যেমন প্রতিষ্ঠানটি আলোকিত করেছেন, তেমনি এখানকার শিক্ষার্থীদের অনেকেই জাতীয় ও আন্তর্জাতিক অঙ্গনে রেখেছেন কৃতীর স্বাক্ষর। প্রতিষ্ঠানটি ভাষা আন্দোলন ও মহান মু্ক্তিযুদ্ধসহ আমাদের জাতীয় ইতিহাসের প্রতিটি গৌরবময় অধ্যায়েরও গর্বিত অংশীদার।নানা সীমাবদ্ধতার মধ্যেও সরকারি মহিলা কলেজ তার গৌরবের উত্তরাধিকার বহন করে চলেছে। উল্লেখযোগ্য সংখ্যক মেধাবী শিক্ষক ও ছাত্রীর সমাহারে কলেজ পর্যায়ে এটি এখনো দেশের শ্রেষ্ঠ উচ্চশিক্ষা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান। গৌরবময় ঐতিহ্যের ধারায় শিক্ষার গুণগত মান উন্নয়নে কলেজটি নিরলসভাবে কাজ করছে।

মার্চ ২৮, ২০১৭
Comments Off on Khulna Govt. Mohila College